logo

সম্পাদকীয়

শিল্প ও শিল্পী চিত্রকলা-বিষয়ক ত্রৈমাসিক পত্রিকার তৃতীয় সংখ্যা প্রকাশিত হলো। দুটি সংখ্যা প্রকাশের পর শিল্পানুরাগী ও নবীন চিত্রকরেরা এ-পত্রিকা সম্পর্কে নানা পরামর্শ দিয়েছেন। ভবিষ্যৎ পথচলা এবং শিল্প ও শিল্পীর ত্রৈমাসিক পত্রিকার চরিত্র নির্মাণের জন্য এ-পরামর্শ সহায় হয়ে রইল।
শিল্পী কামরুল হাসান এদেশের চিত্রকলা-আন্দোলনে এক সজীব ও অগ্রণী ব্যক্তিত্ব। তাঁর সৃষ্টির বহুমাত্রিক গভীরতা ও তাৎপর্য নিয়ে একটি দীর্ঘ প্রবন্ধে শিল্পীর চিত্রচর্চা ও জীবনসাধনা সম্পর্কে আলোচনা করা হয়েছে। উত্তরকালের শিল্প-প্রয়াসে এই মানুষটি কত দিক থেকে যে বিভাময় ও তাৎপর্যসঞ্চারী সে-কথাই বিশ্লেষিত হয়েছে তাতে।
বাংলাদেশের ভাস্কর্যচর্চা নানাদিক থেকে নবীন মাত্রা অর্জন করছে এবং সৃষ্টির দিক থেকে হয়ে উঠছে ঐতিহ্যসন্ধানী ও আধুনিকতা-আশ্রয়ী। এই সংখ্যার একটি প্রবন্ধে এ নিয়ে আলোচনা করা হয়েছে।
আন্তর্জাতিক শিল্পভুবনে খ্যাতিমান ভাস্কর লুইস বুর্জোয়াকে নিয়ে একটি প্রবন্ধ পত্রস্থ হলো। এ-প্রবন্ধে তাঁর সৃষ্টি, মনন ও বোধের গভীরতা নিয়ে বিস্তৃত আলোচনা করা হয়েছে।
বাংলাদেশের চিত্রকলা-আন্দোলনে ষাটের দশক ছিল নানা দিক-পথ নির্মাণের তাগিদে উজ্জ্বল। এই দশকে বাংলাদেশে সাংস্কৃতিক আন্দোলন এবং বাঙালির স্বরূপ-অন্বেষণ বাঙালির জীবনসাধনায় চেতনাসঞ্চারী ও মুক্তিপিয়াসী হয়ে উঠেছিল। চিত্রকলা-চর্চায়ও এসেছিল এক জোয়ার। সাধনা ও চর্চা হয়ে উঠেছিল বিচিত্রমুখী। এ নিয়ে একটি প্রবন্ধে আলোকপাত করা হয়েছে।
ভারতবর্ষের আধুনিক চিত্রকলা-আন্দোলনের অন্যতম পথিকৃৎ অমৃতা শেরগিল। অকালপ্রয়াত এই শিল্পী তাঁর সৃষ্টির মধ্য দিয়ে প্রবহমান চিত্রচর্চায় নবীন জিজ্ঞাসা ও অভিঘাত সৃষ্টি করেছিলেন। কালের যাত্রায় তাঁর সৃষ্টিকে ভারতীয় চিত্রকলায় আধুনিকতার অন্যতম দিশারি বলে অভিহিত করা হচ্ছে। তাঁকে নিয়ে একটি প্রবন্ধে এই শিল্পীর সৃষ্টির উন্মুখতা আলোচনা রইল।
স্বাধীনতার অব্যবহিত পরেই চট্টগ্রামে নবীন সৃজনধারা ধমনিতে ধারণ করে এক নবীন চিত্রকলা-আন্দোলন দানা বেঁধেছিল। তার নেতৃত্ব দিয়েছিলেন শিল্পী রশিদ চৌধুরী, মুর্তজা বশীর ও দেবদাস চক্রবর্তী। তাঁদের শিক্ষকতায় চট্টগ্রামে একদল নবীন শিক্ষার্থী নিজেদের সৃষ্টিতে ঐতিহ্য ও আধুনিকতার মিশ্রণে এক নতুন ধারা গড়ে তুলেছিলেন, যা আজ ‘চট্টগ্রাম ধারা’ বলে সমধিক পরিচিত। এই প্রয়াসের চল্লিশ বছর-উপলক্ষে এ-আন্দোলনের তাৎপর্য ও গভীরতা নিয়ে কিছু কথা বলা হলো একটি প্রবন্ধে।
গুলশানে নবীন বিন্যাসে সজ্জিত বেঙ্গল আর্ট লাউঞ্জে সম্প্রতি অনুষ্ঠিত হলো স্পেনপ্রবাসী শিল্পী মনিরুল ইসলামের একক প্রদর্শনী। প্রদর্শনীটি নানা দিক থেকে ছিল তাৎপর্যমণ্ডিত। এ-প্রদর্শনীর একটি সমীক্ষা পত্রস্থ হলো এ-সংখ্যায়।
কলকাতার আকার-প্রকার গ্যালারিতে সম্প্রতি অনুষ্ঠিত হয়েছিল আচার্য নন্দলাল বসুর ড্রইং-প্রদর্শনী। একটি প্রবন্ধে এই শিল্পীর রেখার শক্তিমত্তা এবং উত্তরকালে তাঁর প্রভাব সম্পর্কে আলোকপাত করা হলো।
আমরা শিল্প ও শিল্পীর দুটি সংখ্যায় সংস্কৃতির বিভিন্ন শাখা সম্পর্কে আলোকপাত করেছি। এ-সংখ্যাতেও স্থাপত্য, নাটক, চলচ্চিত্র, চিত্রকলা-বিষয়ক বইয়ের বিষয়, লস অ্যাঞ্জেলেসে নারীশিল্পীদের একটি প্রদর্শনীর খবর ও আন্তর্জাতিক দুটি নিলামে কোন শিল্পীর ছবি কী দামে বিক্রি হয়েছে তা উল্লেখ করা হয়েছে।
শিল্প ও শিল্পী ত্রৈমাসিকে প্রকাশিত যে-কোনো লেখা সম্পর্কে পাঠকদের মতামত ছাপতে আমরা আগ্রহী। এই সংখ্যায় শিল্প ও শিল্পীতে প্রকাশিত দুটি রচনা সম্পর্কে পাঠকের প্রতিক্রিয়া পত্রস্থ হলো। আমরা বিশ্বাস করি, যে-কোনো তর্ক ও ভিন্নমত শিল্প ও সাহিত্যের উন্নয়ন ও বিকাশকে সহজ করে তুলবে।

Leave a Reply

*