logo

সম্পাদকীয়

চিত্রকলা বিষয়ক ত্রৈমাসিক পত্রিকা শিল্প ও শিল্পীর দ্বিতীয় সংখ্যা প্রকাশিত হলো। প্রথম সংখ্যা প্রকাশের পর আমরা পাঠক, লেখক এবং বিশেষত দেশের তরুণ চিত্রকর ও তরুণ শিল্পানুরাগীদের মধ্য থেকে যে আনুকূল্য পেয়েছি তা আমাদের পথচলায় পাথেয় হয়ে থাকবে।
এই সংখ্যায় আন্তর্জাতিক শিল্প-আন্দোলনের তিন ব্যক্তিত্বকে নিয়ে তিনটি প্রবন্ধ রয়েছে। পাবলো পিকাসো, ফ্রিদা কাহলো ও অ্যান্ডি ওয়ারহল। তিন ভুবনের এই অনন্য চিত্রকরদের নির্মাণ ও সৃষ্টির উৎকর্ষসহ এতে বিশ্লেষিত হয়েছে তাঁদের প্রেম-প্রীতি ও ভালোবাসা ঘিরে নানা টানাপড়েন এবং তাঁদের সৃজনের ইতিবৃত্ত।
বাংলাদেশের শিল্প-আন্দোলনে সফিউদ্দীন আহমেদ দীর্ঘ ষাট বছরের শিল্প-সাধনা ও চর্চার দ্বারা এদেশের চিত্রকলা ও ছাপাই ছবিকে পরিশীলিত বোধে উজ্জ্বল করেছেন। তাঁকে নিয়ে একটি বিশ্লেষণমূলক রচনা রইল এ-সংখ্যায়।
বাংলাদেশের পঞ্চাশের দশকের চিত্রকরেরা নানা পরীক্ষা-নিরীক্ষার মধ্য দিয়ে এদেশের চিত্রকলার গতিপথে নবীন মাত্রা সঞ্চার করেন। পঞ্চাশের দশকের চিত্রীদের সম্পর্কে আলোচনায় তাঁদের জীবনজিজ্ঞাসা, ঐতিহ্যভাবনা ও আধুনিকতা ও সৃজনশীলতার নানা দিক উঠে এসেছে।
চারটি চিত্র-প্রদর্শনীর সমীক্ষা পত্রস্থ হলো এ-সংখ্যায়। ঢাকায় সম্প্রতি হয়ে গেল বাংলাদেশ শিল্পকলা একাডেমী আয়োজিত ১৯তম জাতীয় চারুকলা প্রদর্শনী। প্রদর্শনীটি ছিল নানা দিক থেকে তাৎপর্যময়। তরুণ শিল্পীদের কাজে আমরা প্রত্যক্ষ করেছি সম্ভাবনার অনিঃশেষ অনুষঙ্গ। এছাড়া সম্প্রতি চিত্তপ্রসাদ ও সমকালীনদের ভাস্কর্য প্রদর্শনী অনুষ্ঠিত হয়েছে কলকাতায়। মুম্বাইয়ে অনুষ্ঠিত হয়েছে শিল্পী গণেশ হালুইয়ের প্রদর্শনী। এই প্রদর্শনীগুলোর পরিচয়লাভের মধ্য দিয়ে আমরা সাম্প্রতিক নানা প্রবণতাকেই ছুঁতে চেয়েছি।
প্রথম সংখ্যায় প্রকাশকের পত্রে আমরা উল্লেখ করেছিলাম, প্রদর্শনী সমীক্ষা, নাটক, চলচ্চিত্র ও সংগীতসহ সাংস্কৃতিক অভিব্যক্তির নানা দিক নিয়ে বিশ্লেষণসহ প্রবন্ধ প্রকাশ করা হবে শিল্প ও শিল্পী  ত্রৈমাসিক পত্রিকায়। এই চেতনা থেকে দ্বিতীয় সংখ্যায় সংগীত ও চলচ্চিত্র নিয়ে দীর্ঘ আলোচনা পত্রস্থ হলো। সংগীত নিয়ে রচিত দীর্ঘ একটি প্রবন্ধে বাংলা গানের কিংবদন্তিতুল্য গায়ক ও তাঁদের কণ্ঠবিভা নিয়ে আলোচনা করা হয়েছে। এদেশে নির্মল ও সুস্থ চলচ্চিত্রের সম্ভাবনা প্রচুর। বেশ কয়েকজন নিবেদিতপ্রাণ চলচ্চিত্র-নির্মাতা এদেশের চলচ্চিত্রের দৈন্যদশাকে ঘুচাবার জন্য বৈরী পরিবেশের মধ্যেও যে-প্রয়াস গ্রহণ করেছিলেন তারেক মাসুদ তাঁদের মধ্যে ছিলেন অন্যতম। তাঁর মৃত্যু এদেশের সুস্থ চলচ্চিত্র আন্দোলনে বড়রকম শূন্যতা সৃষ্টি করেছে। তাঁর সম্পর্কে এবং চলচ্চিত্রের নান্দনিক বিষয় নিয়ে আলোচনা রইল এ-সংখ্যায়।

Leave a Reply

*